ঢাকা, রবিবার, ২৭ নভেম্বর ২০২২, ১৩ চৈত্র ১৪২৯, ৩ জ্বমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

শরিফুল মুস্তাফিজকে মুক্তি দিতে পারেন


প্রকাশ: ২১ জুন, ২০২২ ০৪:১০ পূর্বাহ্ন


শরিফুল মুস্তাফিজকে মুক্তি দিতে পারেন

নিজস্ব প্রতিবেদক: সিরিজ নির্ধারণী দ্বিতীয় টেস্ট শুরু হবে ২৪ জুন। এর দুই দিন আগে ২১ জুন সেন্ট লুসিয়ায় গিয়ে পৌঁছাবেন শরিফুল ইসলাম। ভ্রমণ ক্লান্তি কাটিয়ে অনুশীলনও করতে পারবেন এক বা দুই দিন। ম্যাচ খেলতে হলে কিছুটা প্রস্তুতি নেওয়ার দরকারও হবে তাঁর। কারণ ডিউক বলের সঙ্গে পরিচিত হওয়ার ব্যাপার আছে। সেন্ট লুসিয়ায় পৌঁছেই তাই গ্রিপ করতে চান ডিউক বলে। ওয়েস্ট ইন্ডিজ এবং ডিউক বল দুটোই যে অপরিচিত শরিফুলের। বাঁহাতি এ পেসার এ দুই নতুনকেই জয় করতে চান টেস্ট খেলার সুযোগ পেলে। তার খেলা মানেই মুস্তাফিজের ছুটি। অরুচির টেস্ট খেলতে না হলে মুক্তির স্বাদ পাবেন তিনি। অধিনায়ক সাকিবও চান না জোড়াজুড়ি করে কাউকে টেস্ট খেলাতে। সেদিক থেকে বলাই যায় ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে দ্বিতীয় টেস্ট খেলাতে থেকে ফিজকে মুক্তি দিতে পারেন শরিফুল।

অ্যান্টিগা টেস্টের দ্বিতীয় দিনেই ওয়েস্ট ইন্ডিজ থেকে শরিফুল ও তাসকিনের খোঁজ করে টিম ম্যানেজমেন্ট। নির্বাচকদের বলা হয়েছিল, ফিট থাকলে দু'জনকেই দ্বিতীয় টেস্টের আগে উইন্ডিজ পাঠাতে। তাসকিন অপারগতা প্রকাশ করলেও শরিফুল রাজি হয়ে যান। ফিজিও ও মেডিকেল বিভাগের ছাড়পত্র পেতে একটু দেরি হওয়ায় রওনা হতে এই বিলম্ব। টেস্ট ভেন্যুতে পৌঁছেও আরেক দফা ফিটনেস টেস্ট দিতে হবে তাঁকে। সব ঠিক থাকলে মুস্তাফিজুর রহমানের জায়গায় শরিফুলকে খেলানো হতে পারে দ্বিতীয় টেস্টে। ফিজ প্রথম টেস্টে বোলিং ভালো করলেও উইকেট পেয়েছেন মাত্র একটি। ২২ ওভারে ৩৭ রান খরচা, বোলিং ইকোনমি দারুণ। তবুও কোথায় যেন একটা শূন্যতা রয়ে গেছে। সেটা পূরণ করতেই হয়তো শরিফুলকে উড়িয়ে নেওয়া। প্রথম টেস্টের খেলা দেখে বাঁহাতি এ পেসার বুঝে গেছেন ম্যাচ খেলার সুযোগ হলে বোলিংয়ে কী কৌশল নেবেন, 'আমি যা দেখেছি, ওইখানে বল জায়গায় করলেই সুবিধাটা পাওয়া যাচ্ছে। ওদের ক্ষেত্রেও, আমাদের ক্ষেত্রেও। চেষ্টা করব লাইন ও লেন্থ ঠিক রেখে বোলিং করার।' বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন আগেই শরিফুলকে সিগনাল দিয়ে রেখেছিলেন। মানসিক প্রস্তুতিটা তাই আগেই নেওয়া তাঁর। ইচ্ছে যেখানে প্রবল সেখানে মনের জোরেও ভালো খেলা যায়। ইচ্ছে ঘুড়ি ওড়াতেই শরিফুল ডুবে আছেন ওয়েস্ট ইন্ডিজ, ডিউক বল এবং টেস্ট ম্যাচ নিয়ে।

২০২০ সালে অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপের আগে শরিফুলরা ইংল্যান্ড, নিউজিল্যান্ড, দক্ষিণ আফ্রিকায় ম্যাচ খেললেও ক্যারিবীয় দ্বীপ দেশে যাচ্ছেন এই প্রথম। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে চট্টগ্রাম টেস্ট খেলার সময় হাতের আঙুলে চোট না পেলে আরও আগেই যাওয়া হতো তাঁর। সদ্য সমাপ্ত অ্যান্টিগা টেস্টেও খেলতেন ফিট থাকলে। দেরিতে হলেও দ্বিতীয় টেস্ট খেলার সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে ২২ বছরের এ বোলারের। এই সুযোগ কাজে লাগাতেই বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনের কাছ থেকে প্রস্তাব পেয়েই তা লুফে নেন। সেন্ট লুসিয়ার উদ্দেশে গতকাল সন্ধ্যায় দেশও ছেড়েছেন ভালো লাগার আবেশ নিয়ে। যাওয়ার আগে মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে উন্মাদনার কথাই বলছিলেন এ বাঁহাতি, 'আমি খুব রোমাঞ্চিত। খুব ইচ্ছা ছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজে টেস্ট খেলার। এখন যাচ্ছি, দেখা যাক যাওয়ার পরে কী হয়। চোট কাটিয়ে মনে হচ্ছে ভালো অবস্থায় আছি।'


   আরও সংবাদ