ঢাকা, রবিবার, ২৫ জুলাই ২০২১, ১০ অগ্রহায়ন ১৪২৮, ১৫ জ্বিলহজ্ব ১৪৪২

বিজয়রামপুর মান্দারতলা ঈদগাহ ময়দান ঈদের জামায়াত আয়োজনে প্রস্তুত


প্রকাশ: ১৯ জুলাই, ২০২১ ১১:০১ পূর্বাহ্ন


বিজয়রামপুর মান্দারতলা ঈদগাহ ময়দান ঈদের জামায়াত আয়োজনে প্রস্তুত

মণিরামপুর যশোর থেকে আব্বাস উদ্দিন : মুসলিম উম্মাহ’র সর্ববৃহৎ ধর্মীয় অনুষ্ঠান বলতে বছরের দুই ঈদকে (ঈদুল ফিতর ও ঈদুল আযহা) বুঝায়। ঈদ মানে আনন্দ। ঈদ মানে খুশী। আর এই ঈদের জামায়াত মুক্ত খোলা জায়গার মাঠে আয়োজনে থাকে বাড়তি আনন্দ।

প্রতিটি ঈদগাহ ময়দান ঈদ উৎসবকে ঘিরে মনোরমভাবে সাজানো হয়ে থাকে। প্রতিটি ঈদগাহের কমিটি তাদের সাধ্যমত প্রত্যেকটা ঈদগাহের প্রবেশপথে গেট সাজানো, রঙ্গীন কাগজ কেটে ঈদাগাহের প্রাচীর সজ্জা করা হয়ে থাকে। সেই সাথে এখন ঈদ উৎসববে ঘিরে ঈদগাহে করা হয় লাইটিং। আর ঈদগাহ বিশেষ আয়োজন করা হয় সাউন্ড সিষ্টেমের। 

পাশাপাশি প্রতিটি ঈদগাহের আশপাশে মেলার আদলে মিষ্টি মেটাই ও নানা ধরনের বিকিকিনির পসরা সাজিয়ে অস্থায়ী দোকান বসানো হয়। বলা যায় ঈদ আয়োজনকে ঘিরে প্রতিটি মুসলিম পরিবারে আনন্দঘন পরিবেশ সর্বত্র বিরাজমান থাকে। কিন্তু গত প্রায় দেড় বছর যাবৎ এক অদৃশ্য ঘাতক ব্যাধি বৈশি^ক করোনা (কোভিড-১৯) সারা বিশ্বব্যাপি মহাসংকটময় এক পরিস্থিতির সৃষ্টি করেছে। প্রতিটি দেশের মানুষ স্বাস্থ্য ঝুঁকির মধ্যে জীবন অতিবাহিত করছে। 

প্রত্যেকটি দেশ এই বৈশি^ক করোনা থেকে রেহায় পেতে জনগনকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে নানা বিধিনিষেধ আরোপ করে জনগনকে সর্বদা গনজমায়েত এড়িয়ে চলার জন্য বিশেষ তাগিদ দেওয়া হয়। আমাদের দেশে গনজমায়েত এড়িয়ে চলার জন্য প্রায় দেড় বছর তিন তিনটি ঈদের নামায ঈদগাহে আয়োজনে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে মসজিদের নামায আদায়ে নির্দেশনা জারি করা হয়। আসন্ন ঈদুল আযহা’র নামায ঈদগাহে আদায় করা যাবে এই মর্মে সরকার একটি বিধি বিধান জারি করার পর থেকে দেশের অধিকাংশ ধর্মপ্রাণ মসলমানেরা ঈদের নামায ঈদগাহে আয়োজনে বিশেষ প্রস্তুতি গ্রহণ করেছেন বলে বিভিন্ন সুত্রে জানা গেছে। 

যশোর জেলার মণিরামপুর উপজেলার সর্ববৃহৎ ঈদগাহ বিজয়রামপুর মান্দারতলা ঈদগাহে আসন্ন ঈদুল আযহা’র নামায আদায় করার জন্য প্রায় ২০ গ্রামের হাজার হাজার মুসল্লী তাই এখন প্রস্তুত। গত শুক্রবার সকালে ঈদগাহ কমিটি ও এলাকার ধর্মপ্রাণ মুসল্লীরা এক জরুরী বৈঠকে মিলিত হয়ে সরকারি নির্দেশনা মোতাবেক এই বৃহৎ ঈদগাহে ঈদের নামায আদায় করার জন্য উপস্থিত সকলের মতামতের ভিত্তিতে সকল প্রস্তুতি গ্রহণ করেছেন। 

বিজয়রামপুর মান্দারতলা ঈদগাহের ঈমাম ও ঈদগাহ কমিটির সভাপতি আলহাজ¦ মাওঃ হাফিজুর রহমান জানান, আগামী ২১ জুলাই বুধবার সকাল সাড়ে ৮টায় ঈদের জামায়াত অনুষ্ঠিত হবে। সকল মুসল্লীকে মুখে মাস্ক পরিধান করে স্বাস্থ্যবিধি মেনে যথাসময়ে ঈদের জামায়াতে শরীক হওয়ার জন্য তিনি আহবান জানিয়েছেন। 

পাশাপাশি গনজমায়েত হ্রাস ও স্বাস্থ্যবিধি যাতে লঙ্ঘিত না হয় তার জন্য তিনি ঈদগাহ কমিটির সিদ্ধান্ত মোতাবেক কোন প্রকার দোকান-পাট বসানো যাবে না বলে সকলকে বিশেষভাবে অনুরোধ জানিয়েছেন। এদিকে দীর্ঘদিন পর মণিরামপুর উপজেলার সর্ববৃহৎ ঈদগাহের মুসল্লী বিশেষ করে বিজয়রামপুর, কাশিপুর, হালসা, ঘুঘুরাইল, পাড়দিয়া, লাউড়ী, তাহেরপুর, জুড়ানপুর, পাতন, কুষ্ণবাটি, চন্ডিপুর, তেতুলিয়া, মোহনপুর, মণিরামপুর, হেলাঞ্চি, ঘিবা, শ্যামকূড়সহ আশপাশের প্রায় বিশ গ্রামের হাজার হাজার মুসল্লীদের মধ্যে আনন্দঘন পরিবেশ বিরাজ করছে বলে খোঁজ খবর নিয়ে জানা গেছে।


   আরও সংবাদ