ঢাকা, রবিবার, ১৬ মে ২০২১, ২ আশ্বিন ১৪২৮, ৪ শাওয়াল ১৪৪২

লংকানদের অবৈধ সুবিধা দিচ্ছেন স্বদেশি আম্পায়ার!


প্রকাশ: ২ মে, ২০২১ ১২:৩৩ অপরাহ্ন


লংকানদের অবৈধ সুবিধা দিচ্ছেন স্বদেশি আম্পায়ার!


বাংলাদেশের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজে স্বাগতিক শ্রীলংকাকে অবৈধ সুবিধা দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে দেশটির আম্পায়ার কুমার ধর্মসেনার বিরুদ্ধে।

ক্যান্ডিতে সিরিজের দুই টেস্টেই অনফিল্ড আম্পায়ারের দায়িত্বে থাকা ধর্মসেনা নিরপেক্ষ আচরণ করছেন না বলে অভিযোগ উঠেছে।

 

একাধিক উপায়ে স্বদেশি লংকানদের অবৈধ সুবিধা দিয়েই যাচ্ছেন ধর্মসেনা।

ধর্মসেনাকে দেখা গেছে, ম্যাচ শুরুর আগে অনুশীলনে লংকান স্পিনারদের পরামর্শ দিচ্ছেন। উইকেটের আচরণ নিয়ে কথা বলছেন।
প্রশ্ন ওঠাই স্বাভাবিক যে, লড়াইয়ের আগে ম্যাচের আম্পায়ার কীভাবে মাঠে থাকেন? আর সেখানে একটি দলের অনুশীলনের সময় দেখা যাচ্ছে আম্পায়ারকে!

শুধু এটিই নয়, ম্যাচ চলাকালীনও লংকানদের সুবিধা করে দিয়েছেন ধর্মসেনা। দ্বিতীয় টেস্টে বাংলাদেশের ইনিংসে লংকান বোলারদের নতুন বল ব্যবহারের নীতিবিরুদ্ধ সুবিধা করে দেন তিনি। ক্রিকেটের নিয়মের ধার ধারেননি ধর্মসেনা।

এদিন তামিম ইকবালের মারমুখী ব্যাটিংয়ে বলের আকৃতি কিছুটা বদলে যায়, তাই বল পরিবর্তনের প্রয়োজন হয়।


এ ক্ষেত্রে নিয়ম হলো— আকৃতি পরিবর্তনের কারণে যে বদলাতে হবে, সেই বলের মতোই ব্যবহৃত হতে হবে পরিবর্তিত বলকে। ক্যামেরায় দেখা গেছে, আরেক অনফিল্ড আম্পায়ার রুচিরা পালিয়াগুরুগে কমপক্ষে আট ওভার ব্যবহৃত এমন পুরনো বল খুঁজেছিলেন। এ জন্য সময় নিচ্ছিলেন। কিন্তু ধর্মসেনা নতুন একটি বল বেছে নিয়ে তা তুলে দেন লংকান পেসার সুরাঙ্গা লাকমলের হাতে। তা দেখে রীতিমতো অবাক হয়ে যান ধারাভাষ্যকাররাও।

কারণ পুরনো বল না পেলে সে ক্ষেত্রে যে বলটি নেওয়া হয়, তা আগের বলের চেয়ে বেশি উজ্জ্বল হলে রুমাল দিয়ে ঘষে উজ্জ্বলতা কমাতে হয়। কিন্তু ধর্মসেনা তা করেননি।


   আরও সংবাদ