ঢাকা, শনিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১১ মাঘ ১৪২৭, ৮ সফর ১৪৪২

ফেনীতে ডাকাত সন্দেহে ৩ জনকে পিটিয়ে হত্যা


প্রকাশ: ১৩ এপ্রিল, ২০১৯ ১৪:০০ অপরাহ্ন


ফেনীতে ডাকাত সন্দেহে ৩ জনকে পিটিয়ে হত্যা

ফেনীর দাগনভূঁঞা উপজেলায় ডাকাত সন্দেহে তিনজনকে পিটিয়ে হত্যা করেছে স্থানীয় জনগণ। এ সময় আরও একজন গুরুতর আহত হয়েছেন।

শুক্রবার দিনগত রাতে উপজেলার মাতুভূঁঞা ইউনিয়নের আলীপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

দাগনভূঁঞা থানার ওসি সালেহ আহমদ পাঠান গণমাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

হতাহতদের নাম-পরিচয় এখনও পাওয়া যায়নি। পুলিশ তাদের শনাক্ত করার চেষ্টা করছে।

ওসি আরও বলেন, রাত সাড়ে ৩টার দিকে ডাকাতদল আলীপুর গ্রামের হেদায়েতুল্লাহ ম্যানেজার বাড়িতে হানা দেয়। লোকজন টের পেয়ে ডাকাতদলকে তাড়া দেয়। তখন তারা চারজনকে ধরে ফেলে এবং গণপিটুনি দেয়।

তিনি বলেন, আজ সকালে জেলা সদর হাসপাতালে নেয়ার পথে দুজন মারা যান। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আরও একজন মারা যান। বাকি একজন চিকিৎসাধীন।

সদর হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা (আরএমও) আবু তাহের বলেন, গুরুতর আহত অবস্থায় চারজনকে হাসপাতালে আনা হয়। এর মধ্যে তিনজন মারা গেছেন এবং একজন চিকিৎসাধীন।

ফেনীর দাগনভূঁঞা উপজেলায় ডাকাত সন্দেহে তিনজনকে পিটিয়ে হত্যা করেছে স্থানীয় জনগণ। এ সময় আরও একজন গুরুতর আহত হয়েছেন।

শুক্রবার দিনগত রাতে উপজেলার মাতুভূঁঞা ইউনিয়নের আলীপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

দাগনভূঁঞা থানার ওসি সালেহ আহমদ পাঠান গণমাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

হতাহতদের নাম-পরিচয় এখনও পাওয়া যায়নি। পুলিশ তাদের শনাক্ত করার চেষ্টা করছে।

ওসি আরও বলেন, রাত সাড়ে ৩টার দিকে ডাকাতদল আলীপুর গ্রামের হেদায়েতুল্লাহ ম্যানেজার বাড়িতে হানা দেয়। লোকজন টের পেয়ে ডাকাতদলকে তাড়া দেয়। তখন তারা চারজনকে ধরে ফেলে এবং গণপিটুনি দেয়।

তিনি বলেন, আজ সকালে জেলা সদর হাসপাতালে নেয়ার পথে দুজন মারা যান। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আরও একজন মারা যান। বাকি একজন চিকিৎসাধীন।

সদর হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা (আরএমও) আবু তাহের বলেন, গুরুতর আহত অবস্থায় চারজনকে হাসপাতালে আনা হয়। এর মধ্যে তিনজন মারা গেছেন এবং একজন চিকিৎসাধীন।


   আরও সংবাদ