ঢাকা, রবিবার, ০৩ মার্চ ২০২৪, ২০ আষাঢ় ১৪৩০, ২২ শাবান ১৪৪৫

প্রধানমন্ত্রীর “রূপকল্প বাস্তবায়নে সবাইকে কাজ করার আহবান জানান : হাইকমিশনার শামীম আহসান


প্রকাশ: ১৬ অগাস্ট, ২০২০ ০০:০০ পূর্বাহ্ন


প্রধানমন্ত্রীর “রূপকল্প বাস্তবায়নে সবাইকে কাজ করার আহবান জানান : হাইকমিশনার শামীম আহসান

   

কূটনৈতিক প্রতিবেদক : হাইকমিশনার শামীম আহসান বলেছেন, বঙ্গবন্ধুর প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করেন এবং বাঙালির প্রতিটি ন্যায় সংগত আন্দোলনে তাঁর অবিস্মরণীয় ভূমিকার কথা তুলে ধরেন। অসাধারণ মহানুভবতা, মানুষের প্রতি অকৃত্রিম ভালোবাসা এবং রাজনৈতিক দুরদর্শিতা ও প্রজ্ঞার কারণে তিনি কিভাবে “বঙ্গবন্ধু” হিসেবে মানুষের হৃদয়ে স্থান করে নেন তা তিনি বিভিন্ন তথ্যসহ তুলে ধরেন। “মুজিববর্ষ” যথাযথ ভাবে পালনের ব্যাপারেও তিনি মিশনের কর্মসূচির কথা উল্লেখ করেন। এ প্রসঙ্গে তিনি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার “রূপকল্প-২০২১”, “রূপকল্প-২০৪১”এবং ডেল্টা-২১০০ বাস্তবায়নের লক্ষ্যে সবাইকে কাজ করার আহবান জানান। 

মিশনের তৃতীয় সচিব মোহাম্মদ শাহ ইকরামুল হকের সঞ্চালনায় আলোচনা পর্বে মোহাম্মদ শাহ ইকরামুল হক, মিজ রুশনান মুর্তজা, ডেপুটি রিপ্রেজেনটেটিভ, ইউনিসেফ-নাইজেরিয়া এবং কম্যুনিটি নেতা  আকবর হোসেনও বক্তব্য রাখেন। 

নাইজেরিয়ার রাজধানী আবুজায় বাংলাদেশ হাইকমিশন যথাযোগ্য মর্যাদাও অত্যন্তভাব গম্ভীর পরিবেশে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৫তম শাহাদত বার্ষিকী পালন করে। জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে ১৫ই আগস্ট সকাল সাড়ে ৯ টায় আনুষ্ঠানিক ভাবে হাইকমিশন চত্বরে মিশনের কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের উপস্থিতিতে হাইকমিশনার শামীম আহসান কর্তৃক জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত করনের মধ্য দিয়ে দিনের কর্মসূচি শুরু হয়। 

কর্মসূচির দ্বিতীয় পর্বে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানোর পরিবারের শহীদ সদস্যবৃন্দের আত্মার মাগফেরাত কামনায় হাইকমিশনে বিকাল ৩ টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত পবিত্র কোরআন থেকে তেলওয়াত (কোরানখানী) করা হয়। 

সন্ধ্যায় আলোচনা সভা এবং দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়। শুরুতে হাইকমিশনার, মিশনের কর্মকর্তা/কর্মচারী ও প্রবাসী বাংলাদেশীরা বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুস্পার্ঘ্য অর্পন করেন। বঙ্গবন্ধু ও তাঁর পরিবারের শহীদ সদস্যদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে এক মিনিট নিরবতা পালন করা হয়। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের উপর নির্মিত একটি প্রামাণ্য চিত্র প্রদর্শন করা হয়। জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী, পররাষ্ট্র মন্ত্রী ও পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী কর্তৃক প্রেরিত বাণী পাঠ করা হয়। আলোচনা সভায় বক্তারা বঙ্গবন্ধুর বর্ণাঢ্য জীবন ও অর্জন সম্পর্কে আলোকপাত করেন। তারা বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নʿসোনার বাংলা’গড়ার লক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রী  শেখ হাসিনার গতিশীল নেতৃত্বে সমবেত ভাবে কাজ করে একটি উন্নত ও সমৃদ্ধিশালী বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে কাজ করার আহবান জানান।

বাংলাদেশ কমিউনিটির সদস্যবৃন্দ, নাইজেরিয়ার অতিথিবৃন্দ ও হাইকমিশনের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এবং পরিবারের অন্যান্য শহীদদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে ও দেশের অব্যাহত সমৃদ্ধির জন্য বিশেষ দোয়া পরিচালনা করা হয়। পরবর্তীতে আমন্ত্রিত অতিথিবৃন্দের আপ্যায়িত করা হয়। কোভিড-১৯ এর ব্যাপক বিস্তারের কারণে সীমিত পরিসরে স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে জাতীয় শোক দিবসের কর্মসূচি পালন করা হয়।


   আরও সংবাদ