Mymensinghnews24

ময়মনসিংহ শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪

শিরোনাম
  • রাঙ্গামাটিয়া ইউনিয়নে ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প উদ্বোধন করেছেন অধ্যক্ষ মু কামরুল হাসান মিলন স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে স্মারক ডাকটিকিট উন্মোচন করলেন প্রধানমন্ত্রী অনুমতি উপেক্ষা করে ময়মনসিংহে জামায়াতের বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ ২৮ জুলাই সমাবেশের অনুমতি চেয়েছে জামায়াত ইসলামী ময়মনসিংহ মহানগরী ময়মনসিংহে ব্যতিক্রমী উদ্যোগ স্ট্রিট লাইব্রেরি, রাস্তার পাশেই ধার করা যায় বই হৃদয়-শামীম দাপটের পর হ্যাটট্রিক নাটক বাংলাদেশের জয় জন্ম ও মুত্যু নিবন্ধন ওয়েবসাইট থেকে তথ্য ফাঁস পলক শেষ মুহূর্তে গোল হজমে জয় হাতছাড়া বাংলাদেশের র‌্যাবের ওপর থেকে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারে উজরা জেয়ার কাছে অনুরোধ কেমন নির্বাচন চায় যুক্তরাষ্ট্র জানালেন সালমান এফ রহমান
  • শেষ মুহূর্তে গোল হজমে জয় হাতছাড়া বাংলাদেশের

    শেষ মুহূর্তে গোল হজমে জয় হাতছাড়া বাংলাদেশের
    বাংলাদেশ মহিলা ফুটবল দল

    ২০২২ সালের সেপ্টেম্বরে নারী সাফ চ্যাম্পিয়নশিপের শিরোপা জিতেছিল বাংলাদেশ। এরপর এই প্রথম মাঠে নামলো বাংলাদেশ দল। নয় মাস পর মাঠে ফিরে নেপালের বিপক্ষে এগিয়ে থেকেও ম্যাচের শেষ মুহূর্তে গোল হজম করে জয় হাতছাড়া হয়েছে।

    বৃহস্পতিবার কমলাপুরের বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ সিপাহী মোস্তফা কামাল স্টেডিয়ামে আন্তর্জাতিক প্রীতি ম্যাচে নেপালের সঙ্গে ১-১ গোলে ড্র করেছে বাংলাদেশ। দুটি গোলই হয় দ্বিতীয়ার্ধে। ৬৫তম মিনিটে অধিনায়ক সাবিনা খাতুনের লক্ষ্যভেদে এগিয়ে যায় স্বাগতিকরা। এরপর যোগ করা সময়ে লড়াইয়ে সমতা টানেন সফরকারীদের সাবিত্রা ভান্ডারি।

    ম্যাচের ১৬ মিনিটে প্রথম সুযোগ পায় বাংলাদেশ। শিউলি আজিমের ক্রসে সাবিনার পাসে ৬ গজ দূরত্বে থেকে কৃষ্ণারানী সরকার পা ছোঁয়ানোর আগেই সেটি ক্লিয়ার করেন নেপালের এক ডিফেন্ডার। ফাঁকে ফাঁকে নেপালও আক্রমণে উঠে ভয় ধরানোর চেষ্টা করেছে। তবে নেপালের মূল অস্ত্র সাবিত্রা ভাণ্ডারিকে কড়া পাহারায় রাখায় তারা গোলমুখ উন্মুক্ত করতে পারেনি। ২৪ মিনিটে সাবিত্রার দুর্বল হেড রুপনা তালুবন্দি করে দলকে রক্ষা করেন। ৩৫ মিনিটে সতীর্থের ক্রসে সাবিত্রা ভাণ্ডারি লক্ষ্যে ঠিকঠাক মতো শট নিতে পারেননি। নিতে পারলে গোল হতে পারতো।

    বিজ্ঞাপন

    দ্বিতীয়ার্ধে বাংলাদেশের তিন জনের অভিষেক হয়েছে। ৬০ মিনিটে সানজিদার জায়গায় নামেন রিপা। এই পরিবর্তনের ৫ মিনিট পরই বাংলাদেশ এগিয়ে গেছে। শাহেদা আক্তার রিপার রক্ষণচেরা পাসে বক্সে ঢুকে গোলকিপারকে একা পেয়ে নিখুঁত ফিনিশিংয়ে জাল কাঁপান সাবিনা। তাতে উল্লাসে মেতে ওঠেন মাঠে উপস্থিত কয়েক হাজার দর্শক।

    এরপর ৭৩তম মিনিটে সমতায় প্রায় ফিরেই গিয়েছিল নেপাল। তবে রুপনার অসাধারণ সেভে অক্ষত থাকে বাংলাদেশের গোলপোস্ট। ডি-বক্সের ভেতরে ডান দিক থেকে কাটব্যাক করেন সাবিত্রা। ফাঁকায় থাকা বদলি নামা রেশমি কুমারি ঘিসিং একা পেয়ে যান রুপনাকে। তার শট ঝাঁপিয়ে ঠেকান বাংলাদেশের গোলরক্ষক।


    0

    সর্বশেষ