ঢাকা, বুধবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ৭ মাঘ ১৪২৮, ১৪ সফর ১৪৪৩

জবির ছাত্রী হলের সিটের আবেদন অনলাইনে, মেধা ও জেলাকে প্রাধান্য


প্রকাশ: ১৩ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ০৮:৪৯ পূর্বাহ্ন


জবির ছাত্রী হলের সিটের আবেদন অনলাইনে, মেধা ও জেলাকে প্রাধান্য

জবি প্রতিনিধি : জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) একমাত্র ছাত্রী হলের সিট বরাদ্দের জন্য আগামী এক-দুইদিনের মধ্যে অনলাইনে গ্রহণ করা হবে আবেদন। সোমবার (১৩ সেপ্টেম্বর) বিশ্ববিদ্যালয়ের বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব হলের প্রভোস্ট অধ্যাপক ড. শামীমা বেগম জানিয়েছেন, মেধা, ব্যাচ ও দূরবর্তী জেলার শিক্ষার্থীরা সিট পাওয়ার ক্ষেত্রে প্রাধাণ্য পাবে।

তিনি প্রতিবেদকে বলেন, গত সিন্ডিকেটে হলের নীতিমালা প্রস্তুত করা হয়েছে। কিছু কারেকশন ছিল ঠিক করা হয়ে। আগামীকাল মঙ্গলবার (১৪ সেপ্টেম্বর) উপাচার্য মহোদয়ের অনুমতি পেলে আইটি দপ্তরে দেয়া হবে। তারা অনলাইনে আবেদন গ্রহণের জন্য ব্যবস্থা নিবে।

প্রভোস্ট বলেন, প্রাথমিকভাবে সকল শিক্ষার্থীরা সিটের জন্য আবেদন করতে পারবে। তবে আমাদের হলে সিট রয়েছে ৬০০ এর কিছু বেশি। আমরা চাইলেই সকল শিক্ষার্থীকে তুলতে পারব না। তাই আমরা মাস্টার্স, স্নাতক শেষ বর্ষকে বেশি প্রাধান্য দিব। এছাড়া নিচের প্রত্যেক ব্যাচের জন্যও সিট থাকবে। তাদের সিট দেওয়ার ক্ষেত্রে বাইরের দূরবর্তী জেলা ও ব্যাচের রেজাল্টকে এক্ষেত্রে প্রাধান্য দেওয়া হবে। প্রথম বর্ষের জন্যও সিট থাকবে। তাদের ক্ষেত্রে এডমিশনের রেজাল্টের উপর ভিত্তি করে সিট দেওয়া হবে। বিশেষ চাহিদাসম্পন্ন কয়েকটি সিট ছাড়া বাকি তেমন কোটা নেই। নীতিমালা মেনেই সিট দেওয়া হবে। 

এছাড়া হলের সিট প্রদান ও হলের সার্বিক অবস্থা সম্পর্কে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বিশ্ববিদ্যালয়ের দায়িত্বরত একজন কর্মকর্তা বলেন, ছাত্রী হলের অবকাঠামোগত কাজ শেষ। এখন হল মেইনটেইনের লোকবল ঠিক করা হবে। কারণ হলের গেইট ম্যান, নিরাপত্তাদানকরী, লাইব্রেরিতে, ক্যান্টিনের বাবুর্চি-কর্মী, পরিচ্ছন্নকর্মী, লিফটম্যানসহ বেশ কিছু লোকবল প্রয়োজন। পরীক্ষার আগে চেষ্টা করা হচ্ছে হলে ছাত্রী উঠানোর জন্য। তবে এসব কার্যক্রম শেষ করতে দেরি হলে আগামী ৭ অক্টোবর পরীক্ষার পরে হলে ছাত্রী তোলা হতে পারে জানান তিনি।

এদিকে হল পরিদর্শন করে দেখা যায়, হলের ছাত্রী উঠার আগেই যেসকল আসবাবপত্র নষ্ঠ হয়ে গিয়েছিল সেগুলো ঠিক করা হয়েছে। এছাড়া সংবাদ মাধ্যমে আসার পর হলে মেয়াদ উত্তীর্ণ অক্সিজেন সিলিন্ডার অপসারণ করে নতুন করে লাগানো হয়েছে বলে দেখা গেছে।


   আরও সংবাদ